আমাদের সাথে যোগাযোগ করুন

কৃষি দিবানিশি

হারিয়ে যাচ্ছে কৃষির ঐতিহ্য

যুক্তরাজ্যের শর্পশায়ারে দিনের পর দিন হারিয়ে যাচ্ছে পারিবারিক ঐতিহ্য কৃষি কাজ। যাদের পূর্ব পুরুষ কৃষক ছিলেন, তাদের দাদা বা বাবার সময় পর্যন্তই কৃষি কাজের ইতি টানতে হচ্ছে কৃষি পেশায়। কেউ কেউ এই পেশা ধরে আছেন, কিন্তু পরবর্তী প্রজন্ম এই কাজে আর আগ্রহী নন।

জমির মালিক ও কৃষকদের মধ্যে একজন হলেন স্টিফেন। তিনি বলেন, তাদের অনেক জমি এখন দিনের পর দিন পরে আছে। আমি পূর্ব পুরুষের পেশা কৃষি ধরে রাখলেও আমার দুই সন্তানের একজন চিকিৎসক, আরেকজন ইঞ্জিনিয়ার। তারা কৃষি আবাদ করার কথা কল্পনাও করতে পারে না।

উন্নত বিশ্বে ঐতিহ্যবাহী কৃষক পরিবার থেকে কৃষি চলে যাচ্ছে পুরোপুরি ব্যবসায়ীদের হাতে। আর বাংলাদেশে ভূমির মালিকের হাত থেকে কৃষি চলে যাচ্ছে ক্ষেত মজুর আর বর্গা চাষীদের হাতে।

পাবনার ঈশ্বরদী উপজেলার মুলাডুলি কৃষি ব্লকে আসলেই দেখা যায়, ৮টি গ্রামের প্রায় শতভাগ আবাদী জমিতে আবাদ করেন বর্গা চাষীরা। তারা কিছু দিন আগেও ছিলেন ক্ষেত মজুর বা কৃষি শ্রমিক।

এদের মধ্যে একজন বর্গাচাষী জানান, আমার নিজের কোনো জমি নেই। অন্যের জমি বর্গা নিয়ে চাষ করি আমি। আবার কোনো কোনো বর্গা চাষী বলেন, বছরে বিঘায় ১২ হাজার টাকা করে জমি লীজ নেন তারা।

জমির মালিকরা কেন সব জমি লীজ দিয়ে দেয় তার কারণ জানতে চাইলে বর্গা চাষীরা বলেন, জমির মালিকরা নিজেরা জমিতে এসে কাজ করলে তাদের মান সম্মান যাবে। এই ভয়ে তারা জমি লীজ দিয়ে দেয়।

তবে কৃষি কাজে পুষিয়ে উঠতে পারছেন না বলে জানান ভূমি মালিকরা। মুলাডুলির কৃষি কাজ থেকে সরে আসা ভূমি মালিক আমিনুর রহমান বাবু বলেন, গত দুই বছরে কৃষকরা একদম সর্বসান্ত হয়ে গেছে। আবাদ করতে কৃষকদের যে খরচ হয়, বাজার না থাকার কারণে সেই খরচটা পর্যন্ত আমরা উঠাতে পারিনি।

তবে ১২ হাজার টাকায় ১ বিঘা জমি লীজ নেওয়া একজন কৃষক বলেন, জমির মালিকরা জৈষ্ঠ্য মাসে ধান কাটলে ১ বিঘা থেকে ২০ মণ ধান পায়। যার দাম প্রায় ১০ হাজার টাকা। ওই টাকাটা তারা বিনা খরচে পাচ্ছেন।

পক্ষান্তরে বর্গা চাষীর জন্য কৃষি এখন লাভজনক। তাই তারা হয়ে উঠছেন ভূমি মালিক। প্রথম দিকে কেউ কেউ ১ বিঘা জমি নিয়ে কাজ শুরু করলেও ৫ বছরের ব্যবধানে এখন ১০ বিঘা জমিতে কাজ করে তারা। তাদের কেউ কেউ গত ৫ বছরে ১৫ লাখ টাকা জমিয়েছেন।

এখন সবার মনে প্রশ্ন আসছে কৃষির এই পরিবর্তনের ফলাফল নিয়ে। প্রাথমিকভাবে মাঠ পর্যায়ের বিশেষজ্ঞরা বলছেন, মাটি হয়ে পড়ছে অভিভাবকহীন।

মুলাডুলির উপসহকারি কৃষি কর্মকর্তা রুমানা পারভীন জানান, জমির ওপর মালিকদের আর তদারকি থাকছে না। আবার যারা লীজ নিচ্ছেন তারা অতিরিক্ত ফসল উৎপাদনের জন্য জমিতে লবণ ব্যবহার করেন।

নীতি নির্ধারকদের আগামী খাদ্য নিরাপত্তা ও কৃষি পরিকল্পনায় এই আবর্তনটিকে আমলে নিতে হবে। ভিতরে ভিতরে কৃষির বাণিজ্য ও লাভ ভাগ হযে যাচ্ছে বড়, মাঝারি ও প্রান্তিক কৃষকদের মধ্যে। এ যেনো এক ধরণের বিকেন্দ্রিকরণ। প্রতিনিয়তই এর প্রসার ঘটছে। এর ফলে গ্রাম বাংলার অর্থনীতি যেমন চাঙ্গ হচ্ছে, গোটা দেশের অর্থনীতিতে আসছে আমূল পরিবর্তন।

কৃষি দিবানিশি

নাঈমের খামারের প্রায় ৯৫% মুরগি প্রতিদিন ডিম দিচ্ছে

নাঈমের খামারের প্রায় ৯৫% মুরগি প্রতিদিন ডিম দিচ্ছে
সম্পূর্ণ খবরটি পড়ুন

কৃষি দিবানিশি

ভুট্টিগরুর অর্গানিক খামার

ভুট্টিগরুর অর্গানিক খামার
সম্পূর্ণ খবরটি পড়ুন

কৃষি দিবানিশি

একদিকে ইলেক্ট্রনিক পণ্য ব্যবসায়ী অন্যদিকে গরুর খামারি

একদিকে ইলেক্ট্রনিক পণ্য ব্যবসায়ী অন্যদিকে গরুর খামারি
সম্পূর্ণ খবরটি পড়ুন

কৃষি দিবানিশি

মুক্তা চাষে সফল ডিপ্লোমা ইঞ্জিনিয়ার মামুন

মুক্তা চাষে সফল ডিপ্লোমা ইঞ্জিনিয়ার মামুন
সম্পূর্ণ খবরটি পড়ুন

কৃষি দিবানিশি

ফেনীর সোনাগাজীতে অবসরপ্রাপ্ত সেনা কর্মকর্তার বহুমুখি কৃষি উদ্যোগ

ফেনীর সোনাগাজীতে অবসরপ্রাপ্ত সেনা কর্মকর্তার বহুমুখি কৃষি উদ্যোগ
সম্পূর্ণ খবরটি পড়ুন
বিজ্ঞাপন
কমলা

কমলা চাষে সার ব্যবস্থাপনা, সেচ, আগাছা ব্যবস্থাপনা ও ফসল তোলা- দা এগ্রো নিউজ

আমের চারা তৈরি, চারা রোপণ,সার ব্যবস্থাপনা, সেচ ও আগাছা ব্যবস্থাপনা,রোগ ব্যবস্থাপনা, পোকা দমন ব্যবস্থাপনা

আমের চারা তৈরি, চারা রোপণ,সার ব্যবস্থাপনা, সেচ ও আগাছা ব্যবস্থাপনা,রোগ ব্যবস্থাপনা, পোকা দমন ব্যবস্থাপনা – দা এগ্রো নিউজ

লিচুর চারা তৈরি, চারা রোপণ, সার ব্যবস্থাপনা,অন্তবর্তীকালীন পরিচর্যা ও পোকা মাকড় ব্যবস্থাপনা - দা এগ্রো নিউজ

লিচুর চারা তৈরি, চারা রোপণ, সার ব্যবস্থাপনা,অন্তবর্তীকালীন পরিচর্যা ও পোকা মাকড় ব্যবস্থাপনা – দা এগ্রো নিউজ

তাল উৎপত্তিস্থান, পুষ্টিমান, ওষুধিগুণ, উৎপাদন পদ্ধতি, বীজতলা তৈরী ও চারা উৎপাদন - দা এগ্রো নিউজ

তাল উৎপত্তিস্থান, পুষ্টিমান, ওষুধিগুণ, উৎপাদন পদ্ধতি, বীজতলা তৈরী ও চারা উৎপাদন – দা এগ্রো নিউজ

লটকনের চাষ পদ্ধতি মাটি

লটকনের ওষুধিগুণ, চাষ পদ্ধতি, চারা রোপণ, পরিচর্যা ও সার প্রয়োগ- দা এগ্রো নিউজ

আপেল-স্ট্রবেরির দরকার নেই, বাঙালিরা পেয়ারা বা বরই খেলেও একই উপকার পাবেন -ইউনিসেফ কর্মকর্তা

আপেল-স্ট্রবেরির দরকার নেই, বাঙালিরা পেয়ারা বা বরই খেলেও একই উপকার পাবেন

কোটি ডলার ব্যয়ে প্রচারণা, নতুন জাতের এই আপেল কি বিশ্ব বাজার দখল নিতে পারে?

যুক্তরাষ্ট্রে এমন একটি আপেলের চাষ শুরু হয়েছে যা ‘এক বছর সতেজ থাকবে’

ফুলগাছের চেয়ে ফল বা সবজি গাছ কেনায় ক্রেতারা বেশী আগ্রহী বলে জানান বিক্রেতারা

পরিবারের সদস্যদের জন্য ভেজালমুক্ত খাবার নিশ্চিত করতেই ছাদে বা বারান্দায় ফল,সবজি চাষ করতে আগ্রহী হচ্ছেন মানুষ

অর্গানিক খাদ্য: বাংলাদেশে বাড়ছে চাহিদা কিন্তু মান নিশ্চিত হচ্ছে কী?

অর্গানিক খাদ্য: বাংলাদেশে বাড়ছে চাহিদা কিন্তু মান নিশ্চিত হচ্ছে কী?

কফি সংকট যেভাবে আপনার ওপরে প্রভাব ফেলতে পারে

কফি সংকট যেভাবে আপনার ওপরে প্রভাব ফেলতে পারে

শীর্ষ সংবাদ

সম্পাদক ও প্রকাশক: শাইখ সিরাজ
© ২০২১ সর্বস্বত্ব সংরক্ষিত। দা এগ্রো নিউজ, ফিশ এক্সপার্ট লিমিটেডের দ্বারা পরিচালিত একটি প্রতিষ্ঠান। ৫১/এ/৩ পশ্চিম রাজাবাজার, পান্থাপথ, ঢাকা -১২০৫
ফোন: ০১৭১২-৭৪২২১৭
ইমেইল: info@theagronews.com, theagronewsbd@gmail.com