আমাদের সাথে যোগাযোগ করুন

বিশ্ব

স্বর্ণের চেয়েও দামি, এক কাপ চায়ের মূল্য সাড়ে আট লাখ টাকারও বেশি!

এবার স্বর্ণের চেয়েও দামি চায়ের সন্ধান মিলেছে। যার এক গ্রামের দাম স্বর্ণের এক গ্রামের দামের থেকে ৩০ গুণ বেশি। এর এক কাপ চায়ের দাম সাড়ে সাত লাখ রুপি (বাংলাদেশি মুদ্রায় প্রায় সাড়ে আট লাখ টাকারও বেশি)। শুনলে খটকা লাগলেও ঘটনা সত্যি। বিশ্বের অন্যতম দামি এই চায়ের নাম ‘দা হোং পাও’। 

খুব বিরল জাতের এই চা উৎপন্ন হয় চীনের ফুজিয়ান প্রদেশের উয়ি পর্বতে। সারা বিশ্বের মধ্যে একমাত্র চীনে এই চায়ের ছ’টি গাছ রয়েছে। বিরল এবং উৎকৃষ্ট গুণমানের জন্য দা হোং পাও-কে চায়ের রাজা বলা হয়। ২০০৬-এ চীন সরকার প্রায় ১১৭ কোটি টাকার বিমা করিয়েছে এই ছ’টি চা গাছের। এক কেজি এই চায়ের দাম প্রায় ৮ কোটি ৩০ লক্ষ রুপি। তিনশো বছর ধরে এই চায়ের চাষ হচ্ছে চীনে।জানা গেছে, মূল্যবান এই চায়ে ক্যাফিন, থিওফিলিন, পলিফেনলস এবং ফ্ল্যাবোনয়েড আছে। স্বাস্থ্যের পক্ষে যা খুব উপকারী। প্রতি দিন এই চা খেলে ত্বক ভাল থাকে। মাটির পাত্রে বিশুদ্ধ পানিতে এই চা বানাতে হয়। সুগন্ধের জন্যও এই চায়ের দাম এত বেশি। 

বিশ্ব

গরু জবাই নিষিদ্ধের প্রস্তাব শ্রীলংকার মন্ত্রিসভায় অনুমোদন

ওয়ালিউল্লাহ সিরাজ: [২] দেশটির সরকার জানায়, আইনটিকে অনুমোদনের জন্য এখন সংসদে তোলা হবে। দেশে কৃষিকাজ ও দুগ্ধ শিল্পের জন্য প্রয়োজনীয় গরু নেই। গরু জবাই নিষিদ্ধের ফলে গবাদি দুগ্ধ-শিল্প উপকৃত হবে। বিবিসি

[৪] দেশটির গরুর গোশতের ব্যবসা এবং হালাল সার্টিফিকেশনের নিয়ন্ত্রণ মুসলমানদের হাতে। গরু জবাই নিষিদ্ধ হলে তারা ক্ষতিগ্রস্ত হবে। জনসংখ্যার ৭০ শতাংশ মানুষ বৌদ্ধ ধর্মের অনুসারী। আর ১০ শতাংশ মুসলমান।

[৫] শ্রীলংকায় গরু জবাই নিষিদ্ধ করার প্রস্তাব প্রথম উঠেছিল ২০০৯ সালে। ভিজেদাসা রাজাপাকসে এ সংক্রান্ত একটি প্রস্তাব সংসদে তুলেছিলেন। তবে সে সময় প্রস্তাবটি সংসদে গৃহীত হয়নি। অবশ্য ২০১২ সালে ক্যান্ডি শহরের কর্তৃপক্ষ পৌর এলাকার মধ্যে গরু জবাই নিষিদ্ধ করেছে।

সম্পূর্ণ খবরটি পড়ুন

বিশ্ব

খালি বোতলে সৌরশক্তি

হ্যাপি আক্তার: খালি কোকের বোতলগুলো সৌরশক্তি চালিত আলোর উৎসে পরিণত হচ্ছে। তারা বিদ্যুতের অ্যাক্সেস ছাড়াই সম্প্রদায়ের জন্য পথ আলোকিত করছে এবং একই সঙ্গে প্লাস্টিকের বর্জ্য আপসাইক্লিং করছে। ফেসবুক

এটি সম্পন্ন করার জন্য বিশেষ কোনো দক্ষতার প্রয়োজন নেই। লিটার লাইট ট্র্যাশ, ল্যাম্প এবং সৌর ব্যাটারি ব্যবহার করে শক্তির দারিদ্র্য দূর করছে।

সম্পূর্ণ খবরটি পড়ুন

বিশ্ব

ডেঙ্গু রোগী ভর্তি ২২ হাজার ছাড়ালো: স্বাস্থ্য অধিদপ্তর

শাহীন খন্দকার: [২] স্বাস্থ্য অধিদপ্তর আরো জানিয়েছে,দেশের বিভিন্ন হাসপাতালে গত ২৪ ঘন্টায় আরও ১২৩ জন ডেঙ্গু আক্রান্ত হয়ে ভর্তি হয়েছেন, যা নিয়ে চলতি বছর হাসপাতালে চিকিৎসা নিতে আসা রোগীর সংখ্যা ২২ হাজার ১৩১জন। গত ২৪ ঘন্টায় রাজধানীতে ২৪ ঘন্টায় নতুন ভর্তি ১১৬ জন এবং ঢাকার বাইরে ভর্তি রোগী ৭ জন।

[৩] সরকারী হিসাবে ২২ দিনে ৩ হাজার ৯৩৩ জন আর সেপ্টেম্বরে ৭ হাজার ৮৪১ জন, আগস্টে ৭ হাজার ৬৯৮ জন, জুলাইয়ে ২ হাজার ২৮৬ জন এবং জুন মাসে ২৭২ জন ডেঙ্গু রোগী বিভিন্ন হাসপাতালে ভর্তি হন। বর্তমানে দেশের বিভিন্নসরকারি ও বেসরকারি হাসপাতালে সর্বমোট ডেঙ্গু রোগী ভর্তি ৭৮০ জন।

সম্পূর্ণ খবরটি পড়ুন

পরিবেশ

দেশের কিছু কিছু অঞ্চলে বজ্রসহ বৃষ্টির পূর্বাভাস

জেরিন আহমেদ: [২] পঞ্চগড় অঞ্চলসহ বরিশাল, চট্টগ্রাম ও সিলেট বিভাগের দু’এক জায়গায় অস্থায়ীভাবে দমকা হাওয়াসহ বৃষ্টি অথবা বজ্রসহ বৃষ্টি হতে পারে। এ ছাড়া দেশের অন্যত্র অস্থায়ীভাবে আংশিক মেঘলা আকাশসহ আবহাওয়া প্রধানত শুষ্ক থাকতে পারে।

[৩] এ ছাড়া দেশের অন্যত্র অস্থায়ীভাবে আংশিক মেঘলা আকাশসহ আবহাওয়া প্রধানত শুষ্ক থাকতে পারে। পরবর্তী তিন দিনে আবহাওয়ার অবস্থা সামান্য পরিবর্তন হতে পারে।

[৪] আবহাওয়া অফিস জানিয়েছে, শুক্রবার সকাল থেকে পরবর্তী ২৪ ঘণ্টার আবহাওয়ার পূর্বাভাসে বলা হয়েছে, পঞ্চগড় অঞ্চলসহ বরিশাল, চট্টগ্রাম ও সিলেট বিভাগের দু’এক জায়গায় অস্থায়ীভাবে দমকা হাওয়াসহ বৃষ্টি অথবা বজ্রসহ বৃষ্টি হতে পারে।

[৫] শুক্রবার সকাল ৬টা পর্যন্ত গত ২৪ ঘণ্টায় কক্সবাজারে সর্বোচ্চ ৬০ মিলিমিটার বৃষ্টি হয়েছে। এ ছাড়া চট্টগ্রামে ১২ ও রাঙ্গামাটি ৯ মিলিমিটার বৃষ্টি হয়েছে। এ সময় ঢাকায় কোনো বৃষ্টি হয়নি। বৃহস্পতিবার সীতাকুন্ডে সর্বোচ্চ তাপমাত্রা ছিল ৩৩ দশমিক ৫ ডিগ্রি সেলসিয়াস। শুক্রবার নওগাঁর বদলগাছীতে সর্বনিম্ন ২০ দশমিক শূন্য ডিগ্রি সেলসিয়াস রেকর্ড করা হয়।

[৬] পূর্বাভাসে আরও বলা হয়, দক্ষিণ-পশ্চিম মৌসুমী বায়ু বাংলাদেশ থেকে বিদায় নিয়েছে। লঘুচাপের বাড়তি অংশ উত্তর বঙ্গোপসাগর পর্যন্ত বিস্তৃত রয়েছে। মৌসুমী বায়ু উত্তর বঙ্গোপসাগরে দুর্বল অবস্থায় রয়েছে।

সম্পূর্ণ খবরটি পড়ুন

বিশ্ব

যুক্তরাষ্ট্রের ৩৭ অঙ্গরাজ্যে পিঁয়াজ ফেলে দেওয়ার পরামর্শ

যুক্তরাষ্ট্রের ৩৭ টি রাজ্যে বিক্রি হওয়া তাজা লাল, সাদা এবং হলুদ পিঁয়াজে সালমোনেলা ব্যাকটেরিয়ার সংক্রমণ দেখা দিয়েছে। এ ঘটনায় ৬৫২ জন অসুস্থ হয়ে পড়েছে। তাদের মধ্যে ১২৯ জন হাসপাতালে ভর্তি করা হয়েছে। 

দেশটির সেন্টার ফর ডিজিস কন্ট্রোল অ্যান্ড প্রিভেনশন (সিডিসি) এ তথ্য জানিয়েছে। সিডিসি এক টুইট বার্তায় জানিয়েছে, লেবেলবিহীন পিঁয়াজ বাড়ি থেকে ফেলে দিন। এসব পিঁয়াজ খাবেন না, বিক্রি করবেন না। মেক্সিকো থেকে আমদানি করা লাল, সাদা এবং হলুদ পেঁয়াজের ক্ষেত্রে এ নির্দেশনা দেওয়া হয়েছে।জানা গেছে, মেক্সিকোর চিহুয়াহুয়া থেকে আমদানি করা হয়েছে পিঁয়াজগুলো। আর এসব পিঁয়াজ সরবরাহ করেছে প্রোসোর্স ইনকরপোরেশন। অন্য কোনো পিঁয়াজ কিংবা সরবরাহকারী এই প্রাদুর্ভাবের সাথে যুক্ত কিনা তা যাচাইয়ের জন্য তদন্তকারীরা কাজ করছেন। প্রোসোর্স ইনকরপোরেশন জানিয়েছে, তারা স্বেচ্ছায় পিঁয়াজগুলো প্রত্যাহার করে নিতে সম্মত আছেন।

সম্পূর্ণ খবরটি পড়ুন
বিজ্ঞাপন

শীর্ষ সংবাদ

সম্পাদক ও প্রকাশক: শাইখ সিরাজ
© ২০২১ সর্বস্বত্ব সংরক্ষিত। দা এগ্রো নিউজ, ফিশ এক্সপার্ট লিমিটেডের দ্বারা পরিচালিত একটি প্রতিষ্ঠান। ৫১/এ/৩ পশ্চিম রাজাবাজার, পান্থাপথ, ঢাকা -১২০৫
ফোন: ০১৭১২-৭৪২২১৭
ইমেইল: info@theagronews.com, theagronewsbd@gmail.com